করোনা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোয় ট্রাম্পের পোস্ট সরিয়ে দিল ফেসবুক এবং টুইটার

0
98

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) পোস্ট সরিয়ে দিল ফেসবুক ও টুইটার। অভিযোগ, ট্রাম্প করোনা ভাইরাস সম্পর্কে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিলেন তাঁর পোস্টে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করেছিলেন, করোনা সাধারণ ফ্লুয়ের মতোই একটি অসুখ। পোস্টটি ২৬ হাজার শেয়ার হয় ফেসবুকে (Facebook)। এরপর সেটি সরিয়ে নেওয়া হয়। সংস্থার এক মুখপাত্র এক সংবাদসংস্থা জানিয়েছেন, ‘‘কোভিড-১৯ (COVID-19) সংক্রান্ত ভুল তথ্য থাকলে তা আমরা সরিয়ে দিই।’’

একইভাবে ট্রাম্পের টুইটটিও মুছে দেওয়া হয়েছে। টুইটার (Twitter) কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, কোভিড-১৯ সম্পর্কিত বিভ্রান্তিকর এবং সম্ভাব্য ক্ষতিকারক তথ্য ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে ট্রাম্পের টুইটে। তাই সেটিকে সরানো হচ্ছে। সোমবারই তিনদিনের মধ্যে করোনা আক্রান্ত ট্রাম্প হাসপাতাল থেকে ফিরে আসেন। জনসমক্ষে মুখের মাস্ক টান মেরে খুলে ফেলে তিনি সকলের উদ্দেশে জানান, করোনাকে ভয় পাওয়ার কিছু নেই।

এখনও পর্যন্ত আমেরিকায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ২ লক্ষ ১০ হাজার মানুষ মারা গিয়েছেন। যা গোটা বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ। এই পরিস্থিতিতে স্বয়ং প্রেসিডেন্টের এমন আচরণকে সমালোচনা করেছেন অনেকেই। ‘আমেরিকান প্রোগ্রেস থিঙ্ক ট্যাঙ্ক’-এর সভাপতি নীরা ট্যান্ডন জানাচ্ছেন, ‘‘কোনও মানুষের এমন স্বার্থপরতা আমি কল্পনাও করতে পারি না। মার্কিন প্রেসিডেন্ট, যাঁর সকলকে রক্ষা করার কথা তিনি একেবারে বিপরীত কাজ করছেন। নিজের আশপাশের মানুষের জীবনকে বিপন্ন করে তুলছেন।’’

আরও পড়ুন: ট্রাম্পকে পিছনে ফেলে জনসমর্থন বাড়িয়ে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে বাইডেন

প্রসঙ্গত, এর আগে গত আগস্টেও ট্রাম্পের একটি পোস্ট সরিয়ে দিয়েছিল ফেসবুক। ওই পোস্টটিতে ছিল একটি ভিডিও। যে ভিডিওয় মার্কিন প্রেসিডেন্টকে দাবি করতে দেখা গিয়েছিল, শিশুদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার তেমন সম্ভাবনা ন‌েই। তারা মারণ ভাইরাসের থেকে প্রায় ইমিউন। এমন বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে সেই পোস্টটিও সরিয়ে নেওয়া হয়।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে